The news is by your side.

মুন্সিগঞ্জে চাঁদার টাকা না পেয়ে যুবককে কুপিয়ে হত্যা

0
  • হাঁস-মুরগি ও কবুতর ফার্ম কাল হলো নয়নের। 
  • চাঁদার ৪০ হাজার টাকা না দিলে নয়নকে মারধর করে ছাত্রলীগ নেতা প্রান্ত ও শোভন। 
  • প্রান্ত ও শোভন ছাত্রলীগের পদ ব্যবহার করে এলাকায় গড়ে তুলেছে কিশোর গ্যাং।
  • সদর থানায় প্রাান্তর বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে।  

কায়সার সামির

মুন্সিগঞ্জে সদর উপজেলায় চাঁদার টাকা না পেয়ে স্ত্রী ও মার সামনে মো. নয়ন মিজি (৩৩) কে কুপিয়ে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে রামপাল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতার বিরুদ্ধে। বুধবার বিকেলে সদর উপজেলার উত্তর কাজী কসবা এলাকায় এ মারধরের ঘটনা ঘটলে বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টার দিকে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নয়নের মৃত্যু হয়। নিহত নয়ন সদর উপজেলাযর উত্তর কাজী কসবা গ্রামের মৃত বাতেন মিজির ছেলে।

নয়নের লাশ অ্যাম্বুলেন্সের রেখে ছেলে হত্যার প্রতিবাদে মা সিপাহীপাড়া সড়কে শুয়ে পড়ে অবরোধ করেন। ছবি-শীর্ষ সংবাদ।

নিহত ব্যক্তির ছোট বোন পিংকি আক্তার বলেন, গত বুধবার (৯ জুন) বিকেল চারটার দিকে তার ভাই বাড়ি থেকে বের হন। এর আধা ঘণ্টা পরই জানতে পারেন উত্তর কাজী কসবা প্রাইমারি স্কুলের সামনে থেকে রামপাল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রান্ত শেখ ও তার সহযোগী রনি, কাঞ্চনেরা তার ভাইকে তুলে নিয়ে গেছেন। ঘটনা শুনতে পেয়ে তারা সিপাহিপাড়া এলাকার একটি স্কুলের কাছে গিয়ে দেখেন, প্রান্তরা কাঠের ডাসা দিয়ে নয়নকে পেটাচ্ছেন আর বলে তুুই আমাদেকে ৪০ হাজার টাকা দেস নাই কেন। তিনি ভাইকে বাঁচানোর চেষ্টা করেন। রাস্তায় গিয়ে পুলিশ ডেকে ঘটনাস্থল থেকে নয়নকে উদ্বার করে মুন্সিগঞ্জ জেনারের হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে ঢাকা কলেজ মেডিকেল হাসপাতালে পাঠালে দায়িত্বে থাকা চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে পঙ্গু হাসপাতেলা পাঠায়।

স্থানীয়রা জানান, নয়ন এলাকায় মুরগি ফার্মের ব্যবসা করতেন। এর পাশাপাশি কবুতর পালতেন। কয়েক মাস আগে তাঁর ফার্ম থেকে রামপাল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রান্ত শেখ, শোভন, কাঞ্চন, রনিরা কবুতর, মুরগি চুরি করে। এ নিয়ে নয়নের সঙ্গে তাদের দ্বন্দ্ব হয়। এগুলো নিয়ে এলাকায় সালিস হয়। সেই থেকে নয়নের সঙ্গে দ্বন্দ্ব চলছিল। গত বুধবার (৯ জুন) এর জের ধরে মূলত প্রান্ত শেখ ও তার সহযোগিরা নয়নকে তুলে নিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটিয়েছে বলে দাবি স্থানীয় ব্যক্তিদের।

এই ঘটনায় বুধবার নিহতের মা রাশিদা বাদি হয়ে রামপাল ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক প্রান্ত (২৮), চঞ্চল(৩২), শোভন (৩২), রনি (৩২), কাঞ্চন (২৬), নাহিদ ও তৌফিক নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত আরো ৭/৮ জনকে আসামী করে সদর থানায় মামলা দায়ের করে।

ছবি সংগৃহীত।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মুন্সিগঞ্জ সদর সার্কেল) মিনহাজ উল-ইসলাম বলেছেন, এ ঘটনায় গত বুধবার রাতেই একটি মামলা হয়েছিল। মামলাটি হত্যা মামলায় রূপান্তর করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত এজাহারভুক্ত আসামি নাহিদ ও তৌকির নামে দুজন গ্রেফতার আছে। অন্যদের গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.